Latest activity

    • MyHoTFB.COM
      MyHoTFB.COM added a video Crime Patrol - Ep 875
      Crime Patrol - Ep 875 - Full Episode -26th November, 2017
      • MyHoTFB.COM
        MyHoTFB.COM published a blog post Sample Workshops
        In this workshop, teachers learn ways of helping children carefully reread and mine text for its deepest meaning without making it feel like drudgery.
        • MyHoTFB.COM
          MyHoTFB.COM published a blog post Want Tor to really work?
          Tor Browser will warn you before automatically opening documents that are handled by external applications. DO NOT IGNORE THIS WARNING.
          • News Desk
            News Desk posted to the wire
            [News India] China Link: NewsDog, UC News and others face govt scrutiny: Mobile applications such as WeChat, UC News, News-Dog and Truecaller have come under fresh scrutiny after Indian soldiers posted on China border were asked to delete over 40 applications that may have 'Chinese links'. According to media reports, as per instructions sent on November 24, Indian troops on the China border have been asked to format their smartphones and delete apps that may be compromising national security. It added that a number of Android and iOS apps developed by Chinese companies or having Chinese links are either spyware or malicious and use of these apps by the troops can be detrimental to national security. While WeChat is a messaging platform, UC News is an app developed by the Alibaba Group.
            • News Desk
              News Desk posted to the wire
              [News India] Nissan sues India over outstanding dues; seeks over $770 milllion. Japanese automaker Nissan Motor has begun international arbitration against India seeking above $770 million in a dispute over unpaid state incentives The payment of incentives is due from the Tamil Nadu government as part of a 2008 agreement There are over 20 such cases pending against India, among the highest against any single nation
              • News Desk
                News Desk posted to the wire
                [BD Election News] রসিক নির্বাচন ॥ দেরিতে হলেও নৌকা জেতাতে মাঠে নেমেছে আ.লীগ, পিছিয়ে নেই বিএনপি-জাপা
                • News Desk
                  News Desk posted to the wire
                  [BD News Alert] ভূয়া পরিচয়ে পাসপোর্ট ॥ রোহিঙ্গা নারীদের বিদেশে পাচার করতে মরিয়া দালাল চক্র - বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা নারীদের ভুয়া পরিচয়ে পাসপোর্ট করিয়ে বিদেশে পাচার করছে মরিয়া হয়ে উঠেছে দালাল চক্র। এ কাজে লিপ্ত রয়েছে পুরনো রোহিঙ্গা দালালরা। রোহিঙ্গা ললনাদের পাচার করতে কক্সবাজার ও অন্য জেলার স্থানীয বাসিন্দাদের টাকার লোভে বশে এনে কৌশলে বাংলাদেশি পরিচয়ে পাসপোর্ট করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। ইতোপূর্বে কিছু রোহিঙ্গা নারী বাংলাদেশি পরিচয়ে পাসপোর্ট করতে এসে ধরা পড়ায় তারা এখন কক্সবাজার জেলার বাইরে থেকে পাসপোর্ট তৈরী করছে। প্রায় শতাধিক সুন্দরী রোহিঙ্গা নারীর পাসপোর্ট তৈরী করতে ফরম জমা করা হয়েছে বলে জানা গেছে। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, পাসপোর্ট ফরম জমা হওয়ার পর পুলিশের তদন্ত প্রতিবেদন জমা হতে হয় সংশ্লিষ্ট দপ্তরে। পুলিশ স্থায়ী ও বর্তমান ঠিকানাসহ সব জায়গাতে গিয়ে তদন্ত করে থাকে। পুলিশের তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়া না গেলে কাউকে পাসপোর্ট দেয়া হয় না। তাই তদন্তকারী পুলিশকে ম্যানেজ করে দালালদের কেউ কেউ রোহিঙ্গা নারীর পাসপোর্ট পেয়ে যাচ্ছে বলে অভিযোগ রয়েছে। রোহিঙ্গা দালালরা বাংলাদেশের জাতীয় পরিচয়পত্র নকল করে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও একটি দালাল চক্রের মাধ্যমে বাংলাদেশি পরিচয়ে পাসপোর্ট পেতে মরিয়া হয়ে উঠেছে। জাতীয় পরিচয়পত্র হুবহু নকল করে তাদের পাসপোর্ট অফিসে পাঠানো হচ্ছে। তবে ভুয়া এনআইডি শনাক্ত করতে ব্যাপক যাচাই-বাছাই করছে পাসপোর্ট অফিসের দায়িত্বরতরা। কক্সবাজারে সহজে কোনও রোহিঙ্গা বাংলাদেশি পরিচয়ে পাসপোর্ট পাচ্ছে না দেখে তারা বর্তমানে জেলার বাইরে দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছে। কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো: আফরোজুল হক টুটুল বলেন, রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ শুরু হওয়ার পর থেকে কক্সবাজার জেলা পুলিশ সতর্ক রয়েছে। আইনের চোখ ফাঁকি দিয়ে কোনও রোহিঙ্গা যেন পাসপোর্ট করতে না পারে, সেজন্য গোয়েন্দা বিভাগকে কড়া নির্দেশনা দেয়া আছে। কোনও রোহিঙ্গা যদি পাসপোর্ট ফরম পূরণ করেও থাকে, তাহলে পুলিশের তদন্ত প্রতিবেদনে সেগুলো ধরা পড়ছে। সূত্র জানায়, আগে শুনা গেছে পাচারের জন্য কোন নারী ঠিক করা হলে দালালরা টাকা দিত তার অভিভাবককে। কিন্তু রোহিঙ্গাদের বেলায় এখন তার উল্টো। দাললকে টাকা দিয়েই তাদের মেয়েকে তুলে দিচ্ছে রোহিঙ্গারা। মধ্য প্রাচ্যে আগে থেকে বসবাসরত রোহিঙ্গাদের (স্বজন) সঙ্গে যোগাযোগ করে টেকনাফ ও উখিয়া ক্যাম্পে আশ্রিত কিছু রোহিঙ্গা তাদের মেয়েকে পাঠিয়ে দিচ্ছে বিদেশে। এ জন্য যতটুকু সম্ভব দালালকে উল্টো টাকা ধরিয়ে দিচ্ছে ওই রোহিঙ্গা নারীদের অভিভাবক। তাদের উদ্দেশ্য মেয়ে যদি বিদেশে চলে যেতে পারে, তা হলে যে কোনদিন আশ্রিত রোহিঙ্গা পরিবারের কেউ কেউ পাড়ি দিতে পারবে বিদেশে। নতুবা মিয়ানমারে ফিরে না গিয়ে দেশের কোথাও পালিয়ে ভাড়া বাসায় সুখে দিনযাপন করতে পারবে তারা। এ লক্ষ্যে আশ্রিত ক্যাম্পের যেসব কক্ষে সুন্দরী রোহিঙ্গা ললনা রয়েছে, তাদের কাছে পুরনো রোহিঙ্গা দালালরা বিদেশে নিয়ে যেতে প্রস্তাব রাখার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। পুরনো রোহিঙ্গা দালাল চক্র (আরএসও) একজন নারী বিদেশে অবস্থানকারী রোহিঙ্গার হাতে তুলে দিতে কণ্ট্রাক্ট করছে দুই থেকে তিন লক্ষ টাকায়। তন্মধ্যে পাসপোর্ট বাবদ খরচ করছে ৭০-৮০হাজার টাকা পর্যন্ত। জেলার বিভিন্ন উইনিয়নে ও জেলার বাইরে কিছু স্থানীয় বাসিন্দা ঠিক করে তাদের মেয়ের নামে রোহিঙ্গা মেয়েদের পাসপোর্ট তৈরী করে দেয়া হচ্ছে। বিনিময়ে ওই ভূয়া অভিভাবককে ২০ থেকে ৩০ হাজার টাকা বখশিশ দেয়া হয়ে থাকে বলে সূত্র জানিয়েছে। সূত্র আরও জানায়, অনেক রোহিঙ্গার স্বজন অবস্থান করছে মধ্যপ্রাচ্যসহ বিভিন্ন দেশে। তাদের কাছে যেতেই বাংলাদেশি পাসপোর্ট পাওয়ার জন্য চেষ্টা করছে রোহিঙ্গা নারীরা। স্থানীয যে ব্যক্তিকে রোহিঙ্গা নারীর অভিভাবক দেখানো হয়ে থাকে, ওই ব্যক্তির মেয়ের নামে ইস্যুকৃত জন্ম নিবন্ধন মতে পাসপোর্ট তৈরী করিয়ে দেয়া হচ্ছে রোহিঙ্গা নারীকে। ঐ জন্ম নিবন্ধন অনুযায়ী পাসপোর্ট অফিস, তদন্তকারী ডিএসবি পুলিশ এমনকি ইমিগ্রেশন পর্যন্ত দালালরা মোটা অঙ্কের টাকার চুক্তি করে থাকে। পাসপোর্ট সম্পন্ন হওয়ার পর বিমানে উঠার আগমূহুর্তে জিজ্ঞাসাবাদে ধরা পড়তে পারে সন্দেহে ইমিগ্রেশনের কতিপয় কর্মকর্তার সঙ্গে কণ্ট্রাক্ট করে থাকে তারা। সৌদি আরব ও মালয়েশিয়া পাচার করতে বর্তমানে অন্তত অর্ধ শতাধিক রোহিঙ্গা নারীকে বিচ্ছিন্নভাবে রাজধানীর ফকিরাপুল সহ বিভিন্ন এলাকার আবাসিক হোটেলে রাখা হয়েছে বলে সূত্র দাবী করেছে। দালাল চক্রের মধ্যে চট্টগ্রামে বসবাসরত পুরনো রোহিঙ্গা দালাল ফারুক, মফিজ, কুতুপালং রেজিস্ট্রাট ক্যাম্পের মৌলবি রফিক, মৌলবি নজির হোসেন, টেকনাফ মুচনি ক্যাম্পের হাফেজ নাজমূল ও জয়নাল ভূয়া পরিচয়ে পাসপোর্ট করিয়ে চলছে বলে জানা গেছে। সূত্রে প্রকাশ, দালালচক্র রোহিঙ্গা নারীদের পাসপোর্ট পাইয়ে দিতে কক্সবাজার আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে বহু আবেদনও করেছে। বাংলাদেশি পরিচয়ে পাসপোর্ট করতে এসে ইতোপূর্বে তৈয়বা বেগম ও ছেনুয়ারা বেগম সহ ছয় রোহিঙ্গা নারী ধরাও পড়েছে। রোহিঙ্গা যুবতী তৈয়বা নিজেকে উখিয়ার রুমখাঁপালং গ্রামের অলি আহমদের মেয়ে, ছেনুয়ারা একই গ্রামের লাইলা বেগমের, রোজিনা আক্তার টেকনাফ শামলাপুর গ্রামের আজহার আলম ও মৃত নূর জাহানের ও রাজিয়া বেগম রামু নাসিরপাড়ার ছৈয়দ আকবর ও হোসনে আরা বেগমের মেয়ে পরিচয়ে পাসপোর্ট করার চেষ্টা করে। পরে তাদের আটক ও জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সেলিম শেখ, কক্সবাজার সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নোমান হোসেনের ভ্রাম্যমাণ আদালত বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দিয়েছে। কক্সবাজার আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের সহকারী পরিচালক আবু নাঈম মাসুদ বলেন, রোহিঙ্গারা যেন কোনোভাবেই বাংলাদেশি পরিচয়ে পাসপোর্ট করতে না পারে, সে বিষয়ে আমরা কঠোর অবস্থানে রয়েছি। রোহিঙ্গাদের ফেরত নিতে মিয়ানমার-বাংলাদেশ সমঝোতা স্বাক্ষর সম্পাদিত হওয়ার পর আশ্রিত রোহিঙ্গারা কৌশলে ক্যাম্প ত্যাগ করে চলছে। কেউ কেউ স্বজনদের বাসাবাড়িতে, কেউ আবার কক্সবাজার ও চট্টগ্রাম শহরের দিকে পালিয়ে যাওয়া শুরু করেছে। তাদেরই মেয়েকে মধ্যপ্রাচ্যসহ বিদেশে পাঠিয়ে দিতে তোড়জোড় শুরু করেছে রোহিঙ্গা অভিভাবকরা। মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্য থেকে জুলুম, নির্যাতন ও অমানবিক অত্যাচারের ভয়ে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করে আশ্রয় নিয়েছে লক্ষ লক্ষ রোহিঙ্গা। একাধিক রোহিঙ্গা পরিবার কৌশলে স্থানীয় প্রভাবশালীদের ম্যানেজ করে ভাড়া বাসাসহ লোকালয়ে বিভিন্ন স্থানে বসতি স্থাপন করে যাচ্ছে। তবে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা রোহিঙ্গাদের সরকারের দেয়া নির্দিষ্ট স্থানে ফিরিয়ে আনতে কঠোর ভুমিকা হাতে নিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। র্যাব-৭ কক্সবাজার ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার মেজর রুহুল আমিন জানান, সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী লোকালয়ে এবং ভাড়া বাসায় অবস্থান নেয়া রোহিঙ্গাদের নিবন্ধিত এবং নির্দিষ্ট স্থানে নিয়ে আসতে আমাদের সাঁড়াশী অভিযান অব্যাহত থাকবে। তার পাশাপাশি যে সমস্ত অসাধু ব্যক্তি রোহিঙ্গাদের আশ্রয় প্রশ্রয় দিয়ে বসতি স্থাপন করার জন্য সহযোগীতায় লিপ্ত রয়েছে, ওই অপরাধীদের বিরুদ্ধেও অভিযান পরিচালনা অব্যাহত থাকবে।
                  • News Desk
                    News Desk posted to the wire
                    [BD NEWS] ধর্মগুরু পোপ ফ্রান্সিসের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ | ক্যাথলিক খ্রিস্টানদের প্রধান ধর্মগুরু পোপ ফ্রান্সিসের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাত করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শুক্রবার বিকালে তিনি বারিধারায় ভ্যাটিকান দূতাবাসে গিয়ে পোপের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাত করেন।